Header Ads

Header ADS

অনুগল্প || পাগলের কেচ্ছা || মিন্টু ভদ্র

একদা এক পাগল, এক পাগলীর প্রেমে পড়েছিল। পাগলটি সত্যিই পাগলীটিকে অনেক ভালোবাসতো।
পাগলীটিও পাগলটির জন্য টিপ পরতো, সাজতো আর তাতেই পাগলটির প্রেম আরও বেড়ে যেত। পাগলীর আলাভোলা এলো চুলে আকাশে মেঘ জমতো। চোখের তারায় বিদ্যুৎ চমকাতো বিপুলাবেগে। অতিসাধারণ নাকের নোলক, কানের দুলে পাগলী রুপরাজ্যের রাণী হতো। পাগলীর গলার হারের যে লকেট, সেখানে লেখা থাকতো পাগলটার নাম, সে কথা পাগলটা জানতো না। পাগলীটিও জানতো না যে, তাঁর গালের একটি তিলের জন্য মহাকাব্য রচনা করতে পারে পাগলটি। তারপরও বিভিন্ন পর্যায় অতিক্রম করে ভালোবাসা বাড়তে বাড়তে আকাশ ছুঁয়ে যেত। ভরা পূর্ণিমাতে জোয়ার আসতো, শীতের পরে বসন্ত আসতো আর সবুজে ঘেরা বসন্তের সকালে এলোকেশী পাগলী পাগলটির জন্য ভালোবাসার নৈবেদ্য সাজাতো।

পাগলটি একদিন সকালে হঠাৎ পাগলীটিকে এসে বলল, "আমি তোমার জন্য মরতে পারি।"
পাগলী বলল, "বিশ্বাস করি না, প্রমাণ দাও।"
প্রমাণ দিতে গিয়ে পাগল ও পাগলীর প্রেমোপাখ্যানের চিরসমাপ্তি হয়েছিল। এই কেচ্ছা আমরা ভুলে গেলেও দয়ালু মহাকাল তাঁদেরকে ঠিকই মনে রেখেছে।

অনুগল্প || পাগলের কেচ্ছা || মিন্টু ভদ্র

কোন মন্তব্য নেই

Blogger দ্বারা পরিচালিত.