Header Ads

Header ADS

যশোরে শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কএ চাকরি মেলা --বাস্তবতা

যশোরে শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে গতকাল অর্থাৎ ৫ অক্টোবর ছিল দিনব্যাপী চাকরি মেলা। মেলায় ৩১টি প্রতিষ্ঠান জনবল বাছাই করবে বলে আগে থেকেই শক্ত প্রচারণা চালানো হয়। স্পট ভাইভা হবে বলেও বিভিন্ন প্রচার মাধ্যম থেকে জেনেছিলাম। এ ছাড়া সেমিনার বা চাকরিপ্রার্থীদের সাক্ষাৎকারের প্রস্তুতিবিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হবে এমনটিও শুনেছিলাম। আমরা দুইটি সেমিনারেই অংশ নেওয়ার সুযোগ পেয়েছিলাম। সেমিনার কক্ষের ধারণ ক্ষমতা ছিল সর্বোচ্চ ৫০০ জনের মত (কমই হবে বোধ করি)। প্রায় ২০ হাজার চাকরি প্রার্থীর জীবনবৃত্তান্ত (সিভি) জমা পড়েছে। তার মানে, ২০ হাজারের অধিক মানুষ পার্ক প্রঙ্গণে উপস্থিত থাকবে সেটা ধরে নেওয়া চলে। অর্থাৎ, ১৯হাজার ৫শ জনই সেমিনারের সুবিধাটা পায়নি।

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক সাহেব সকাল সাড়ে নয়টায় চাকরি মেলাটির উদ্বোধন করেন। পরে সেমিনার দুটিতে মাইক কাজী, মুস্তফা জব্বার স্যার এবং সোলাইমান শোকন এর মত বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ তাঁদের গুরুত্বপূর্ণ বক্তৃতা সেমিনারে অংশ নেওয়া চাকরি প্রার্থীদের অনুপ্রাণিত করেছে। বাদবাকি মানুষগুলো এসুযোগ থেকে বঞ্চিত হয়েছে, হতাশ হয়ে ফিরে গেছে-- যেটা খুবই দুঃখ জনক। শুনেছি আয়োজকদের টার্গেট ছিল ৩ হাজার চাকরি প্রার্থীর আগমন ঘটবে। সেখানে প্রায় ২০ হাজার প্রার্থীর সমাগম ঘটেছে। এক পর্যায়ে পুলিশ নিরাপত্তার প্রশ্নে মেলার স্টলে চাকরি প্রার্থীদের প্রবেশ বন্ধ করে দেয়। এজন্য বেশিরভাগ প্রার্থী সরাসরি পছন্দের কোম্পানিতে সিভি জমা দিতে পারেনি, এমনকি নিজের সিভিটা বাইরে থাকা বক্সেও ড্রপ করতে পারেনি --অনেকে নিরাপত্তারক্ষীদের কাছেই সিভি জমা দিয়ে স্বস্তি পেয়েছে। যারা সরাসরি জীবনবৃত্তান্ত জমা দিতে পারেনি তাদের মাঝে প্রশ্ন উঠেছে এতো (২০,০০০) সিভি কি হবে ?
সেমিনারের আলোচনাতে কতৃপক্ষ বলেছে, যারা যোগ্য প্রার্থী তাদের সিভি জমা দিয়ে হতাশ হওয়ার কিছু নেই। তাদেরকে ডাকা হবে। আগামী তিন বছরে এই পার্কে ৫ হাজার লোকের (সুযোগ থাকলে আরও বেশি) কর্মসংস্থান হবে। যারা বাইরে বক্সে সিভি জমা দিয়েছে, ঐসব সিভি তাঁরা সংরক্ষণ করেছে (স্কান করে সকল প্রতিষ্ঠানের কাছে পৌঁছে দেবে। আগামী সাত দিনের মধ্যেই নিয়োগ কার্যক্রম শুরু হবে (যদিও সেমিনার চলা কালীন সময়ে ৯ জনকে চাকরির জন্য বাছায় করা হয়)।

কিন্তু আসলেই হবে কি?
হলেও, কতটুকু হবে-- সেটাই এখন দেখার বিষয়।

কোন মন্তব্য নেই

Blogger দ্বারা পরিচালিত.